২১ কোম্পানির নো-ডিভিডেন্ড !

অর্থবাংলা : বিদায়ী সপ্তাহে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর মধ্যে ৩০ জুন ২০১৯ সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে বিনিয়োগকারীদের ডিভিডেন্ড না দেয়ার সিদ্ধান্ত জানিয়েছে ২১ কোম্পানি। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

কোম্পানিগুলো হলো: বিডি থাই অ্যালুমিনিয়াম, সালভো কেমিক্যাল, জেনারেশন নেক্সট ফ্যাশনস, মুন্নু ফেব্রিক্স, আরএন স্পিনিং মিলস, রেনউইক যজ্ঞেশ্বর, খান ব্রাদার্স পিপি ওভেন ব্যাগ, জিলবাংলা সুগার, ইমাম বাটন, মেঘনা পেট, মেঘনা কনডেন্সড মিল্ক, আরামিট সিমেন্ট, বেক্সিমকো সিনথেটিকস, শাইনপুকুর সিরামিক, উসমানিয়া গ্লাস, দুলামিয়া কটন, গোল্ডেন সন, শ্যামপুর সুগার, ইনটেক, জাহিনটেক্স এবং সাভার রিফ্রাক্টরিজ।

বিডি থাই কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ০.৫৬ টাকা। ৩০ জুন ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২৭.৩৬ টাকা।

সালভো কেমিক্যাল কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ০.৬১ টাকা। ৩০ জুন ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১২.১৫ টাকা।

জেনারেশন নেক্সট ফ্যাশনস কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ০.৪৩ টাকা। ৩০ জুন ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১১.৮৯ টাকা।

মুন্নু ফেব্রিক্স : কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ০.০৫ টাকা। ৩০ জুন ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২৭.১৯ টাকা।

আরএন স্পিনিং মিলস : কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ১৫.৪৭ টাকা। ৩০ জুন ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১.২১ টাকা।

রেনউইক যজ্ঞেশ্বর : শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ৪.২১ টাকা। ৩০ জুন ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৩০.৬৬ টাকা।

খান ব্রাদার্স পিপি ওভেন ব্যাগ: শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ০.২৫ টাকা। ৩০ জুন ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১২.৬৪ টাকা।

জিলবাংলা সুগার মিলস : শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ১০৩.৯০ টাকা। ৩০ জুন ২০১৯ পর্যন্ত শেয়ারপ্রতি ঋণাত্মক সম্পদ দাঁড়িয়েছে ৬০৮ টাকা।

ইমাম বাটন : কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ০.৪৯ টাকা। চলতি বছরের ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি সম্পদ দাঁড়িয়েছে ৫.৩২ টাকা।

মেঘনা পেট ইন্ডাস্ট্রিজ : কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ০.৩২৪ টাকা। চলতি বছরের ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি ঋণাত্মক সম্পদ দাঁড়িয়েছে ৩.৯১৪ টাকা।

মেঘনা কনডেন্সড মিল্ক : কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৭.৮০ টাকা। চলতি বছরের ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি ঋণাত্মক সম্পদ দাঁড়িয়েছে ৫১.৮৮ টাকা।

আরামিট সিমেন্ট : কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৫.১৫ টাকা। চলতি বছরের ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি সম্পদ দাঁড়িয়েছে ০.৮৫ টাকা।

বেক্সিমকো সিনথেটিক : কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৩.৪৬টাকা। চলতি বছরের ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি সম্পদ দাঁড়িয়েছে ১৪.১৩ টাকা।

শাইনপুকুর সিরামিক : কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ০.৪৩ টাকা। চলতি বছরের ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি সম্পদ দাঁড়িয়েছে ২৯.০৪ টাকা।

উসমানিয়া গ্লাস ইন্ডাস্ট্রিজ : কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৬.২১ টাকা। চলতি বছরের ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি সম্পদ দাঁড়িয়েছে ৯৯.৬৫ টাকা।

দুলামিয়া কটন : কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ০.৮৮ টাকা। চলতি বছরের ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি সম্পদ দাঁড়িয়েছে ৩৪.৯৭ টাকা।

গোল্ডেন সন : কোম্পানিটির সমন্বিত শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ০.৯৯ টাকা। চলতি বছরের ৩০ জুন সমন্বিত শেয়ারপ্রতি সম্পদ দাঁড়িয়েছে ২১.০৮ টাকা।

শ্যামপুর সুগার মিলস : কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ১২৬.২৯ টাকা। চলতি বছরের ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি ঋনাত্মক সম্পদ দাঁড়িয়েছে ৮৬৭.৯৭ টাকা।

ইনটেক লিমিটেড: কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ০.৩৯ টাকা। চলতি বছরের ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি সম্পদ দাঁড়িয়েছে ১০.৭০ টাকা।

জাহিনটেক্স : কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ২.২৪ টাকা। চলতি বছরের ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি সম্পদ দাঁড়িয়েছে ২২.৪৯ টাকা।

সাভার রিফ্রাক্টরিজ : কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ১.১৩ টাকা। চলতি বছরের ৩০ জুন পর্যন্ত শেয়ারপ্রতি সম্পদ দাঁড়িয়েছে ৪.০৪ টাকা।