নগদ-ডিআরইউ বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড পেলেন ২২ সাংবাদিক

প্রিন্ট-অনলাইন ক্যাটাগরিতে ১৩ জন এবং টেলিভিশন-রেডিও ক্যাটাগরিতে ৯ জনসহ মোট ২২ সাংবাদিক পেয়েছেন নগদ-ডিআরইউ বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড-২০২১।

মঙ্গলবার ফার্মগেটের কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তাদের হাতে সম্মাননা তুলে দেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

প্রিন্ট-অনলাইন ক্যাটাগরিতে পুরস্কারপ্রাপ্ত ১৩ জন হলেন- দৈনিক সমকালের আবু সালেহ রনি, দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের আব্বাস উদ্দিন নয়ন ও জেবুন নেসা আলো, ডেইলি স্টারের একেএম রাশেদুল হাসান, প্রথম আলোর আদুজ্জামান, রোজিনা ইসলাম ও নাজনীন আখতার; আমাদের সময়ের কবির হোসেন, ঢাকা পোস্টের জোবায়ের হোসেন, বাংলা ট্রিবিউনের মো. শাহেদুল ইসলাম, যুগান্তরের এসএএম হামিদ-উজ-জামান, কালের কণ্ঠের জিয়াদুল ইসলাম এবং সময়ের আলোর রফিকুল ইসলাম সবুজ।

টেলিভিশন ও রেডিও ক্যাটাগরিতে অ্যাওয়ার্ড পাওয়া ৯ জন হলেন- যমুনা টিভির সুশান্ত সিনহা ও আবু সালেহ মো. পারভেজ সাজ্জাদ; একাত্তর টেলিভিশনের কাবেরী মৈত্রেয় ও আদনান খান; মাছরাঙ্গা টেলিভিশনের মাজহারুল ইসলাম ও কাওসার সোহেলী, নাগরিক টেলিভিশনের শাহনাজ শারমিন, চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের সাদমান সাকিব, এনটিভির শফিক শাহীন।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সভাপতি মুরসালিন নোমানীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অ্যাওয়ার্ড কমিটির জুরি বোর্ডের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ জার্নালের সম্পাদক শাহজাহান সরদার, নগদের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভির এ. মিশুক, সিইও নিয়াজ মোর্শেদ, ডিআরইউ’র সাধারণ সম্পাদক মসিউর রহমান খান, অ্যাওয়ার্ড কমিটির আহ্বায়ক ও ডিআরইউ সাংগঠনিক সম্পাদক মাইনুল হাসান সোহেল প্রমুখ।

এ বছর প্রিন্ট-অনলাইন এবং টেলিভিশিন-রেডিও, দুই ভাগে ২২টি ক্যাটাগরিতে সেরা রিপোর্টের জন্য পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। দেশের ১০ জন সিনিয়র সম্পাদক জমা পড়া রিপোর্টের মধ্য থেকে যাচাই-বাছাই করে সেরা রিপোর্ট নির্বাচন করেন।